প্রচ্ছদ

কানাইঘাটে এক শ্রমিকের করোনা শনাক্ত

  |  ০৪:১৩, মে ০৯, ২০২০
www.adarshabarta.com

আদর্শবার্তা ডেস্ক:

সিলেটের সীমান্তবর্তী কানাইঘাট উপজেলায় প্রথম করোনা পজিটিভ রোগী শনাক্ত হয়েছেন। তবে তার দেহে করোনার কোন উপসর্গ নেই। তিনি গত ১ মে হবিগঞ্জ থেকে কানাইঘাটে ফিরেছেন।

স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান মাসুদ আহমদ জানান, ‘করোনায় আক্রান্ত ফারুক আহমদসহ এলাকার ১৮ জন শ্রমিক এপ্রিল মাসের মাঝামাঝিতে বোরো ধান কাটতে হবিগঞ্জ জেলায় যান। পরবর্তীতে ধান কাটা শেষে ১ মে তারা এলাকায় ফিরে আসলে ১৮জনের মধ্যে ফারুক আহমদসহ ৩ জনের নমুনা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে সংগ্রহ করা হয়।’

উপজেলার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের টিএইচও ডাঃ শেখ শরফুদ্দিন নাহিদ জানান, ‘করোনা ভাইরাসের উপসর্গ না থাকার পরও গত ৩ মে হবিগঞ্জ ফেরত ফারুক আহমদের নমুনা সংগ্রহ করে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজের পিসিআর ল্যাবে পাঠানো হয় এবং প্রাথমিক ভাবে তাকে নিজ বাড়িতে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার জন্য বলা হয়।’

‘শুক্রবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে ফারুক আহমদের নমুনা পরীক্ষার রিপোর্ট পজেটিভ বলে সিলেট ওসমানী মেডিকেল থেকে মৌখিকভাবে জানানো হয়েছে। তার রিপোর্ট পজেটিভ আসার কারণে শনিবার সকালে তার চিকিৎসার ব্যবস্থা গ্রহণের পাশাপাশি পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের নমুনা সংগ্রহ করা হবে বলেও জানান তিনি।’

শনিবার সকালে তার বাড়ি লকডাউন করা হবে এবং পরিবারের সদস্যদের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হবে জানিয়েছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বারিউল করিম খান।

থানার অফিসার ইনচার্জ শামসুদ্দোহা পিপিএম জানান, ‘ফারুক আহমদ করোনায় আক্রান্তের সংবাদ পাওয়ার পর তাৎক্ষণিক ঝিঙ্গাবাড়ী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্বাস উদ্দিন ও বাণীগ্রাম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাসুদ আহমদের সাথে কথা বলেছেন তিনি। ফারুক যে যে এলাকায় বিচরণ করেছেন, সেই এলাকা চিহ্নিত করে লকডাউনের উদ্যোগ নেওয়ার জন্যও বলা হয়েছে।’

এদিকে স্থানীয়রা জানিয়েছেন, ফারুক আহমদ হবিগঞ্জ থেকে ফেরত আসার পর নিজ বাড়িতে কোয়ারেন্টাইনে না থেকে এলাকায় অবাধে বিচরণ করেছেন। শুক্রবার রাতেও তিনি তারাবির নামাজ গ্রামের মসজিদে পড়েন।